আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

“যেন হীরা মুক্তা পান্না- রাঁধুনি কবি তামান্না”!

– মুহাম্মদ শামসুল হক বাবু –

কবি তানিয়া পারভীন তামান্নাঃ- মানিকগঞ্জের এক সম্ভ্রান্ত জমিদার পরিবারের ছোট মেয়ে। জন্ম এবং বেড়ে ওঠা সবটাই পাবনা শহরে। পাবনা এডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে ম্যানেজমেন্টে অনার্স মাস্টার্স পাশ করে একটা গ্রুপ অফ কোম্পানিতে এ্যাকাউন্টস অফিসার হিসেবে জব করেন ৩ বছরের অধিক সময়।

এরপরে সূচনা কুকিং একাডেমী থেকে বেকারী এন্ড পেষ্ট্রি প্রোডাক্টশন, ফুড এন্ড বেভারেজ প্রোডাক্টশন এবং ভেজিটেবল কার্ভিং এর ফুল কোর্সও কমপ্লিট করেন সেখান থেকেই। ২০১৭ সালের শেষের দিকে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের ন্যাশনাল হোটেল এন্ড ট্যুরিজম ট্রেনিং ইনস্টিটিউট থেকে বেকারী এন্ড পেষ্ট্রি প্রোডাক্টশনের উপরে NCC/BPP/90 কোর্স কমপ্লিট করে ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল এন্ড রিসোর্ট (এক্স শেরাটন হোটেল) এ ইন্টার্নি করেন।

বর্তমানে মাল্টি কুইজিন নিয়ে কাজ করছেন ঢাকার রামপুরা বনশ্রী থেকে। কবি’র “মাষ্টার কিচেন বাই তানিয়া তামান্না’স ক্যাটারিং হাউস” নামে নিজস্ব একটা প্রতিষ্ঠান আছে। “তানিয়া’স কুকিং এন্ড বেকিং একাডেমি” থেকে অফলাইনে শুধু মাত্র লেডিসদের কে কুকিং এবং বেকিং এর উপরে প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছেন। আর অনলাইনে ছেলেমেয়ে সবার জন্য ট্রেনিং এর সমান সুযোগ রয়েছে। প্রতিষ্ঠানে প্রতিটি ক্লাসেই ৩/৪ জন অস্বচ্ছল নারীদেরকে ফ্রি প্রশিক্ষণের সুযোগ রেখেছেন। বাংলাদেশ শেফ অর্গানাইজেশনের “ইউনিক রেসিপি কনটেস্ট”২০২০ এ পারটিসিপেট করে দ্বিতীয় রানার্স আপ হয়েছিলেন।

বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন থেকে নবান্ন উৎসব এ ধানমন্ডি রবীন্দ্র সরোবরে “পিঠা মেলা”য় অংশ গ্রহণ করেন কবি। ঢাকার রামপুরা বনশ্রী তে অবস্থিত রাজদরবার রেস্টুরেন্টে “বসন্ত মেলায়” অংশ গ্রহণ করেন। এবং নানজিং কমিউনিটি সেন্টারে “পুষ্টি ও বস্ত্র মেলা”য় অংশ গ্রহণ করে ব্যাপক সাড়া ফেলেন। তিনি “কেক আপা” নামেও পরিচিত।

২০২১ সালের ৮ ই মার্চ ঢাকা ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল এন্ড রিসোর্ট এর ক্রিস্টাল বল রুমে আয়োজিত আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ইউনাইটেড মুভমেন্ট ফর হিউম্যান রাইট কতৃক আয়োজিত “কৃর্তীমান নারী সম্মাননা ২০২১” লাভ করেন। কেয়া কসমেটিকস লিমিটেডের সৌজন্যে ৮ ই মার্চ ২০২১, কুকিং সেক্টরে অবদানের জন্য সম্মাননা স্মারকে ভুষিত হন কবি। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে “Golden jubilee award” প্রদান করেন ইউনাইটেড মুভমেন্ট ফর হিউম্যান রাইট।

কলকাতার জনপ্রিয় WNL এর ফেসবুক পেজ থেকে ৩ বার বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী রান্না নিয়ে ফেসবুক লাইভে আমন্ত্রণ পেয়ে WNL এর অনলাইন পোর্টালে রেসিপি পরিবেশন করেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে লাইভ প্রোগ্রাম করা হয়।

Ntv র সাপ্তাহিক আয়োজন Experts today’s kitchen প্রোগ্রামে অংশ গ্রহণ করেন। My tv র কুকিং শো “পাকের ঘরে” অংশগ্রহণ করেন। Gtvর সাপ্তাহিক আয়োজন নারীদের নিয়ে রিয়েলিটি গেম শো “কিউট আজকের অনন্যা”য় অংশ গ্রহণ করে রানার্সআপ হয়েছিলেন তিনি। আরও বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে কাজের প্রস্তুতি চলছে। শ্রদ্ধেয় হাসিনা আনসার আপুর সম্পাদনায় কবির রেসিপি সহ “ঐতিহ্যবাহী রান্না সেরা ১০০ রেসিপি”বইটির প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় খন্ড ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে এবং চতুর্থ খন্ডের কাজ চলছে।

সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ততাঃ
স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলেন কবি। কবিতা আবৃত্তি (আন্তঃ কলেজ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে প্রথম স্হান অর্জন করেন), কবিতা লেখা, গল্প লেখা (বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে), ছবি আঁকা, (প্রতিযগিতায় অংশগ্রহণ করে পুরষ্কার পেয়েছেন)।
বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের গীতিনাট্য “নিশুথী রাইতের বাশী” নাটকে অভিনয় করে ভুয়সী প্রশংসা অর্জন করেন। উপস্থাপনা করা তার খুবই পছন্দের একটা কাজ।

স্কুলে থাকাকালীন আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ স্যারের বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের বই পড়া কর্মসূচির নিয়মিত স্টুডেন্ট ছিলেন। সেখানেই শিখেছেন উপস্থিত বক্তৃতা, অবিরাম গল্প বলা, কুইজ প্রতিযোগিতা, আবৃত্তি ও অভিনয় ইত্যাদি।

পরিশেষে তিনি সময় পেলেই সাহিত্যচর্চা করে থাকেন।
বন্ধুদের সাথে যৌথভাবে প্রাণের ব্যাচ থেকে “প্রাণের কবিতা” নামে একটা কবিতার বই এবং “গল্পের শহরে” নামে একটা গল্পের বই প্রকাশিত হয়েছে ২০২২ এর বই মেলায়। এতক্ষণ যার কথা বললাম সেই নারী উদ্যোক্তা তানিয়া পারভীন তামান্না সামাজিক দ্বায়িত্বও পালন করে যাচ্ছেন সমানতালে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap