আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঈদ যাত্রা নিরাপদ করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশ

আসাদুজ্জামান খাইরুল, বিশেষ প্রতিনিধি
ঈদে ঘরমুখো মানুষের যাত্রাকে নিরাপদ করতে অত্যাধনিক ড্রোন ও সিসিটিভি দিয়ে নজরদারি সহ বিভিন্ন ব্যাবস্থা করেছে বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশ।
৪ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার ) দুপুরে ঢাকা সাভারের  প্রধান মহাসড়কগুলো পরিদর্শন শেষে, নবিনগর চন্দ্রা মহাসড়কের বাইপাইল মোড়ে সাংবাদিকদের ব্রিফি করেন, বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি,  মো: শাহাবুদ্দীন খান।
গাজীপুর হাইওয়ে পুলিশ সুপার, (অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত)মো: মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাইপাইল মোড়ে চারটি ক্যামেরা এবং ইপিজেড এলাকায় চারটি ক্যামেরা সিসিটিভি কাভারেজে আনা হয়েছে। যা বাইপাইলল মোড় থেকে নজরদারি করা হবে। এবং সর্বক্ষণিক ড্রোন থাকবে, যে ড্রোন দিয়ে আমরা চতুর্দিকে ৭ কিলো মিটার কাভার দেয়া হবে। এবং রাস্তার প্রতিটি মোড় থেকে দুই কিলো পর্যন্ত মাইক বসানো হবে, যা দিয়ে গাড়িচালকদের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেয়া হবে।
বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি, মো:শাহাবুদ্দিন খান বলেন, ঈদ যাত্রাকে নিরাপদ ও জানজট মুক্ত করতে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশ। উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের সাথে রাজধানীর সংযগস্থল সাভার আশুলিয়া ও গাজীপুরে এবারই প্রথম অত্যাধনিক ড্রোনের ব্যাবহার করা হবে। সিসিটিভি ক্যামেরায় নজরদারি থাকছে পূর্বের ন্যায়। এছাড়া দায়িত্বরত পুলিশ অফিসারদের বডিওন ক্যামেরাও থাকবে। তিনি আরো বলেন আমরা ড্রোনের মাধ্যমে যানজট নিরসনে চালকদের নির্দেশনা দেয়ার চেষ্টা করব। এবারে বিশেষ করে গাবতলী থেকে চন্দ্রা মহাসড়কে উন্নয়ন কার্যক্রম চলছে, এবিষয়ে ইতিমধ্যেই কয়েক দফা রোডস এন্ড হাইওয়ে সহ সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে সমন্বয় করা হয়েছে, নির্মাণ কাজ চলমান থাকবে। তবে ঈদ যাত্রা কে সামনে রেখে ঈদের আগ পর্যন্ত যেন ঈদ যাত্রায় কোন বাধা বিঘ্ন না হয়, সেজন্য যেখানে যেখানে ঘেরাও করা ছিল ইতিমধ্যে সেগুলো অনেকটা পরিষ্কার করা হয়েছে, আরো কিছু করা হবে। এবারে ঈদ যাত্রা আজকে থেকে শুরু হবে আমরা আশা করছি, কাল পরশু আরো ব্যাপক হারে ঘর মুখো মানুষদের রাস্তায় দেখতে পাবো। তাই নিরাপত্তা ব্যবস্থা সার্বিকভাবে নেয়া হয়েছে, যাতে ঘর মুখো মানুষরা তাদের স্বজনদের কাছে নিরাপদে পৌঁছাতে পারে এবং আবার কর্মস্থলে ফিরে আসতে পারে। যেহেতু রোডের কনস্ট্রাকশন এর কাজ চলছে সেটাকে মাথায় রেখেই ড্রাইভারদেরকে চলাচলের জন্য অনুরোধ করছি।
ঈদকে উপলক্ষ্য করে অজ্ঞান পার্টি ছিনতাইকারীরা অনেক সময় মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। এবার মাসখানেক আগে থেকেই আমরা জেলা পুলিশের সাথে সমন্বয় করে সর্বাধিক নজরদারি ও প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি।
জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, কোন অপ্রীতিকর ঘটনা দেখলে ৯৯৯ ফোন করে পুলিশকে সাথে সাথে জানাবেন এবং সচেতন থাকবেন। বিশেষ করে পণ্যবাহী গাড়িতে, বাসের ছাদে, ট্রাকে এবং অন্য কোন খোলা যানবাহনে ঝুঁকিপূর্ণ যাত্রা না করার জন্য অনুরোধ করছি।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম ,অপস & ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ হিল কাফি , আশুলিয়া থানার ইনচার্জ, এ এফ এম সায়েদ, সহ সাভার-আশুলিয়া থানা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশের সদস্যরা।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap