আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

“নুপুর ছেঁড়া পায়েল”

 

– মুহাম্মদ শামসুল হক বাবু

প্রিয় শ্রীমতি রুমাদেবীর একটি পায়েল,
তোমার অনুষঙ্গ ছিল একজোড়া নূপুর-
নূপুরের ছন্দে যখন বৃষ্টি ঝরে টাপুরটুপুর!

রমণীর পছন্দ ও ভালো লাগার অলঙ্কার,
আলতা রঙে পা রাঙ্গাতে ভালোবাসে নারী-
নুপুর হারিয়ে গেলে পায়েল করে ছাড়ি!

শিহরিত মৃদু শব্দকেও ভালোবাসি আমি,
যে ব্যঞ্জনা প্রিয়জনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে-
অজান্তেই আক্রান্ত হয় ভালোবাসার জ্বরে!

সৌভাগ্যবান পায়েল ও নুপুরের পদ চুম্বন,
তোর রূপ-সৌন্দর্যকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে-
একাকিত্বের রং মহলে আমি গেছি হারিয়ে!

অনন্যার চকচকে পাথরের নিখুঁত কারুকাজ,
কড়ি ও ঝিনুক আরও আছে শামুকের গহনা-
একটু রহ না- এনে দেব- সেই কথা কহ না!

পাহাড়ি নারীদের পায়ের গয়না ছিল খাড়ু,
পড়েছিলে হাতের গহনা যেমন তোর চুড়ি-
স্নিগ্ধপ্রভাত- ভেজাঘাস ও ভালোবাসার নুড়ি!

বিদ্রঃ অসমাপ্ত প্রেমের কবিতার অংশ বিশেষ।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap