আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নির্বাচনে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না: ওবায়দুল কাদের

বিশেষ প্রতিনিধি:

নির্বাচনে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না। আন্দোলন শান্তিপূর্ণভাবে করার অধিকার সকল গণতান্ত্রিক দলের রয়েছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আন্দোলনের নামে যদি সহিংসতা হয় এবং জনগণের জানমালের জন্য হুমকি সৃষ্টি করা হয়। তাহলে আমরাও প্রস্তুত রয়েছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ তা প্রতিরোধ করবে, বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (০৫ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিনবাজার, সালেহপুর ও নয়ারহাটে তিনটি সেতু নির্মাণ প্রকল্পের আট লেন বিশিষ্ট দ্বিতীয় আমিনবাজার সেতু ও চার লেন বিশিষ্ট দ্বিতীয় সালেহপুর সেতুর কাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

সেতু মন্ত্রী আরো বলেন নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষের দিকে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনার পর সার্চ কমিটি গঠন করে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে।

 এই নির্বাচন কমিশনে কারো কোনো সংশয় থাকার কথা নয়, এই নির্বাচন কমিশনে বিএনপিরও একজন দলীয় কমিশনার আছেন। যিনি বিভিন্ন বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে দ্বিমত করেন। বিএনপি যে সুরে কথা বলে, সেই সুরেই কথা বলেন।

যুক্তরাজ্যে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকির উপর হামলার ব্যাপারে সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রাধানমন্ত্রী এ বিষয়ে কথা বলেছেন। টিউলিপ যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টের মেম্বার তাদের একটা দ্বায়িত্ব আছে। এ বিষয়ে তারা কি করেন আমরা সেটা দেখছি। তবে এটি খুবই নিন্দনীয় একটি ঘটনা।

বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে সওজের এই সেতু নির্মাণ কাজে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত খরচ হয়েছে ৩০ দশমিক ৯৫ কোটি টাকা। সেতু দুটির কাজ শুরু হয়েছে চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারিতে এবং কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে ২০২৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি।

কাজের অগ্রগতি বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, এ কাজের ২৫ শতাংশ ভৌত অগ্রগতি সম্পন্ন হয়েছে। ২৩২ দশমিক ৯৪ মিটারের পাঁচটি স্প্যান বিশিষ্ট দ্বিতীয় আমিনবাজার সেতুর চুক্তিমূল্য হয়েছে ২০৪ কোটি টাকা। এ সেতুর ১৪০টি পাইলের ১০২টি পাইল সম্পন্ন হয়েছে।

অপরদিকে ৬৩ দশমিক ৮১ মিটারের তিনটি স্প্যান বিশিষ্ট দ্বিতীয় সালেহপুর সেতুর চুক্তি মূল্য হয়েছে ৪০ দশমিক ৫০ কোটি টাকা। এ সেতুর ৮৬টি পাইলের সবকটি পাইলের কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

আমিনবাজার সেতুটির জন্য ৮০০ মিটার অ্যাপ্রোচ সড়ক এবং সালেহপুর সেতুর জন্য ১৪০০ মিটার অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সহ আরও অনেকে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap