আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শহীদ শাহানুর ইসলাম তিতাসের স্মরণে জেলা ছাত্রলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ ও কবর জিয়ারত 

সোলায়মান হোসাইন রুবেল, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ

স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সাহসী নেতৃত্ব ও এরশাদের পেটুয়া বাহিনী কর্তৃক নিমর্মভাবে নিহত হওয়া নেত্রকোণার জেলা ছাত্রলীগের প্রথম শহীদ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ‘শহীদ শাহানুর ইসলাম তিতাস’ এর স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন, শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন, ও তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে কবর জিয়ারত করা হয়।

‘শহীদ শাহানুর ইসলাম তিতাস’ স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে নেত্রকোণা প্রথম শহীদ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থনা ও প্রকাশনা  বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।১৯৮৪ সালের ২৭ শে সেপ্টেম্বর এরশাদের পেটুয়া বাহিনীর নির্মম আঘাতে মৃত্যু হয় তার।

আজ শনিবার (৩ জুলাই) নেত্রকোণা জেলা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি রবিউল আউয়াল শাওন ও সাধারণ সম্পাদক সোবায়েল আহমেদ খান এর নেতৃত্বে এই কর্মসূচী পালন করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নিশাদ সাদিয়া খান মিলি, জেলার নবনির্বাচিত সভাপতি রবিউল আউয়াল শাওন, সাধারণ সোবায়েল আহমেদ খান, সহ-সভাপতি রাকীব আহমেদ রাজীব, জহির রায়হান খান, ফায়জুর রহমান সজীব, ফরহাদ হাসান শরাফ,তারেক রেজওয়ান রুপক, মনোয়ার হোসেন সুকেল, আলিফ নাসের অনি,

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৌশিক রায়, আশিকুর ফারাস দোদুল, হাসিব ইবনে হান্নান হৃদম, গৌরব আহমেদ খান, মাহমুদুল হাসান সুচল, ইমরুল কাওছার জিসান, সাংগঠনিক সম্পাদক ঝিনুক খান, হিমাদ্রী সাহা, তানভীর হোসেন বাঁধন, জুয়েল আহমেদ খান, রুমিত আয়াত সাহিদা, শুভ সরকার প্রমূখ।

পরে নবনির্বাচিত জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল আউয়াল শাওন বলেন,

আন্দোলন-সংগ্রাম-অধিকার আদায়ের জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা পেয়েছিল।

জেলার নতুন কমিটির প্রথম কর্মসূচীতে

“ঘুমের দেশে, ঘুম ভাঙ্গাতে ঘুমিয়ে গেলেন যিনি” আমাদের ছাত্রলীগের  প্রিয় শহীদ শাহানুর ইসলাম তিতাস ভাইয়ের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

আমরা তিতাস ভাইয়ের রক্ত বৃথা যেতে দিবো না। তিতাস ভাইয়ের খুনিরা অনেকেই ধরা ছোয়ার বাহিরে।  আমি খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করছি এবং শহীদ তিতাস ভাইয়ের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap