আজ ১১ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মদনে ব্যবসায়ীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বাড়ি-ঘরে ভাংচুর ও লুটপাট

নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ

 

নেত্রকোণার মদন উপজেলায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংর্ঘষে আহত ব্যবসায়ী হেকিম মিয়া (৫৮) এর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বাড়ি- ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট ঘটনা ঘটে।

 

জানা যায়, মঙ্গলবারে উপজেলার মদন-কেন্দুয়া সড়কের দেওয়ান বাজার রোডে আধিপত্য বিস্তারকে ঘিরে উপজেলা সেচ্ছসেবকলীগের সভাপতি লিটন বাঙালীর সঙ্গে সংঘর্ষে অপর পক্ষের একজনকে কুপিয়ে জখম করে তার লোকজন। এই জখম হওয়া ব্যক্তি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুত্ব অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছে।

 

তখন একই সময় আহত ব্যবসায়ী হেকিম মিয়া(৫৮) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই রাতে তার মৃত্যু হয়।

 

এ ঘটনায় ৩৮ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ৪০/৫০ জনকে আসামি করে নিহতের স্ত্রী মোছাঃ সাজু আক্তার বাদী হয়ে ওই রাতেই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

মামলা সূত্রে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ব্যবসায়ী হেকিম মিয়ার মৃত্যুকে কেন্দ্র উপজেলার চকপাড়া এলাকায় বিভিন্ন বাড়ি-ঘরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

 

মদন থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, হেকিম মিয়া ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার মারা গেছেন। এ ঘটনায় তার স্ত্রী মোছাঃ সাজু আক্তার বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে ৩৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৪০/৫০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

 

তিনি আরো জানান, লাশের ময়নাতদন্ত চলছে। তবে এজাহারে উল্লেখ কিল, ঘুষি, লাথিতে তার মৃত্যুর বিষয়টি ময়মনসিংহ হাসপাতালের ময়না তদন্ত রিপোর্টে নিশ্চিত হওয়া যাবে। আর বাড়ি ঘরে হামলার বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে ভাংচুরের বিষয়ে কেউ যদি থানায় অভিযোগ করে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এবিষয়ে মদন উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সৈয়দ রিফাদ জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অসুস্থ হেকিম মিয়া হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মদন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। তখন রোগীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ প্রেরণ করা হয়।

 

তিনি আরও বলেন, আহত ব্যক্তির শরীরে কোন কিল, ঘুষির চিহ্ন পাওয়া যায়নি এবং তাদের আত্মীয়-স্বজন ও আমাদের কিছু জানায়নি।

 

 

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap