আজ ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নেত্রকোণায় পদাবনতি হওয়া সেই উপ-সহকারী পরিচালককে বিদায় সংবর্ধনা!

সোলাইমান হোসাইন রুবেল, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ

 

নেত্রকোণা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সেই উপ-সহকারী পরিচালক আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লা দুর্নীতি করে সরকারের টাকা আত্মসাৎ করায় পদাবনতি পেয়ে হন স্টেশন অফিসার। পরে তাকে বদলি করা হয় রংপুরে।

 

 

এই বদলি উপলক্ষ্যে রবিবার (১৭ জানুয়ারি) বিকেলে ময়মনসিংহ বিভাগীয় উপ-পরিচালক আবুল হোসেন তাকে সংবর্ধনা প্রদান করেন।

 

দফতরটির নেত্রকোণার প্রধান, সদস্য সাবেক হওয়া ওই ঊর্ধ্বতনকে জেলা কার্যালয়ে

আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে দেয়া হয় বিদায় সংবর্ধনা।

 

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, ময়মনসিংহ বিভাগীয় উপ-পরিচালক আবুল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠান ব্যানারে ময়মনসিংহের সহকারী পরিচালক প্রাণনাথ সাহার নাম উল্লেখ থাকলেও তিনি ছিলেন অনুপস্থিত। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, নেত্রকোনা জেলা কার্যালয়ের সিনিয়র স্টেশন অফিসার খানে আলম খান।

 

উল্লেখ্য, পদাবনতিতে সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লা জামালপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে উপ-সহকারী পরিচালক থাকাকালে ভারপ্রাপ্ত সহকারী পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন।

 

তখন তিনি ৪ লাখ ১৩ হাজার টাকার দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হন। এবং অভিযোগের প্রেক্ষিতে

‘অসদাচারণ’ ও ‘দুর্নীতি’ এর বিভাগীয় মামলা হয়। এতে একাধিক তদন্তে দোষী সাবস্ত হন তিনি।

 

সেই প্রেক্ষিতে তাকে অপরাধের শাস্তি হিসেবে চলতি বছরের মঙ্গলবার (০৫ জানুয়ারি)

পদাবনতির মাধ্যমে দেয়া হয় গুরুদন্ড।

 

তারপর বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন ও উপ-পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) শামীম আহসান চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তার বদলির আদেশ জারি করা হয়।

 

এদিকে দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রধান, উপ-পরিচালক আবুল হোসেনের বিরুদ্ধেও। আবেদন করা হয়েছে অভিযোগের বিষয়গুলো সুষ্ঠু তদন্তের।

 

অভিযোগে নিবেদক হিসেবে দেখানো হয়েছে নির্যাতিত কর্মকর্তা কর্মচারী।অভিযোগটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব বরাবর। যা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ও সরকারি বিভিন্ন দফতরসহ অনুলিপিতে রয়েছে ময়মনসিংহ, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, শেরপুর ও নেত্রকোণা প্রেসক্লাব সভাপতি/সম্পাদক।

 

নেত্রকোণা জেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক

শ্যামলেন্দু পাল কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগের কপি পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন তিনি।

 

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap