আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কেশবপুরে সাধকের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গৃহবধূকে ধর্ষণ: ধর্ষক যুবক গ্রেফতার

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:

 

যশোরের কেশবপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে সাধকের নিকট থেকে ছেলের জন্য তন্ত্রমন্ত্র নেওয়ার কথা বলে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। ওই গৃহবধূ বাদি হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করলে এ ঘটনায় পুলিশ এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। ধর্ষণের মামলায় আটককৃত যুবককে সোমবার আদালতে সোপর্দ করা হয়।

 

পুলিশ জানায়, উপজেলার ভরতভায়না গ্রামের এক গৃহবধূকে (৪০) তার ছেলের জন্য সাধকের নিকট থেকে তন্ত্রমন্ত্র নেওয়ার কথা বলে গত শনিবার রাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পাশ্ববর্তী ভেরচি গ্রামের ঘোষপাড়া ডাঙ্গির বিলের রাস্তার পূর্বপাশে জনৈক অজয় ঘোষের ধান ক্ষেতের প্রশস্থ আইলের উপর জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। রোববার রাতে ওই গৃহবধূ উপজেলার গৌরিঘোনা ইউনিয়নের সন্ন্যাসগাছা গ্রামের বারেক শেখের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩৩), তার ৩ সহযোগী সন্ন্যাসগাছা গ্রামের লতিফ সরদারের ছেলে জসিম উদ্দিন (৩৫), ভরতভায়না গ্রামের আব্দুল হান্নান সরদারের ছেলে আবু সাঈদ (৩৩) ও কাশিমপুর গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে রোস্তম আলী ফকিরের (৩৯) নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেন। আসামি সিরাজুল ইসলামকে সাধক সাজিয়ে ওই গৃহবধূকে পাশ্ববর্তী ভেরচি গ্রামের ঘোষপাড়া ডাঙ্গির বিলের ভেতর নিয়ে যাওয়া হয়।

 

কেশবপুর থানার পুলিশ রোববার গভীর রাতে এ মামলার আসামি ভরতভায়না গ্রামের আব্দুল হান্নান সরদারের ছেলে আবু সাঈদকে গ্রেফতার করে। সোমবার ওই গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জসীম উদ্দিন বলেন, ধর্ষণ মামলার আসামি আবু সাঈদকে গ্রেফতার করে সোমবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap