আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পুলিশের আগাম সতর্কবার্তয়, ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটালো গ্রামবাসী

আবু সায়েম আকন, (ঝালকাঠি)
ঝালকাঠির রাজাপুরে পুলিশ কর্তৃক আগাম সতর্কবার্তয়, ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটালো গ্রামবাসী। ডাকাত পরেছে এমন সংবাদে এলাকার মসজিদে সতর্কতামূলক মাইকিং করা হয়েছে। যার কারনে উপজেলা জুড়ে ডাকাত আতঙ্কে সবাই নির্ঘুম রাত কাটিয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১১ টা থেকে উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে মসজিদে মসজিদে এমন মাইকিং করা হয়। যার কারনে এলাকার রাস্তায় রাস্তায় পাহাড়ায় নামে স্থানীয় লোকজন।
রাজাপুর থানা পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে এ উপজেলার কোনও এক এলাকায় ডাকাতি হতে পারে এমন তথ্য গোয়েন্দা পুলিশের মাধ্যমে তারা জানতে পারে। সাথে সাথে পুলিশ টহল আরো জোরদার করে উপজেলা বাসীকে সতর্ক করতে পাশাপাশি ছয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদেরও দায়িত্ব দেয়া হয়। ইউনিয়ন চেয়ারম্যানবৃন্দ স্ব স্ব ইউনিয়নের সকল মসজিদে সতর্কতামূলক মাইকিং করায়।
স্থানীয় হারুন, কাশেম, জব্বার, সাহেব আলী জানায়, এলাকায় ডাকাত ডুকেছে মসজিদের মাইকে হঠাৎ এমন মাইকিং শুনে প্রথমে বিষটি গুজব মনে হলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে ফোনে কথা বলে বিষটি নিশ্চিত হয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। পরে সারারাত আর ঘুমোতে পারিনি।
শুক্তগড় ইউপি চেয়ারম্যান বিউটি সিকদার জানান, শনিবার রাত ১১টার দিকে থানা পুলিশের কাছ থেকে মোবাইল ফোনে জানতে পারি এলাকায় ডাকাতি হতে পারে। তাই আমার ইউনিয়ন ডাকাত মুক্ত রাখতে সাথে সাথে ইউপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ ও স্থানীয় যুব সমাজকে সাথে নিয়ে সারা রাত ইউনিয়ন জুড়ে পাহাড়ায় থাকি।
রাজাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায় বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাতে ছয় ইউনিয়নে পুলিশ টহল জোরদার করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে জনসাধারণকেও সতর্ক করা হয়েছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap