আজ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

৪ শর্তে দোকানপাট ও শপিংমল খুলতে পারবে ব্যবসায়ীরা

নিউজ ডেস্ক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিস্তার ঠেকাতে সরকারি-বেসরকারি অফিসে ছুটির মেয়াদ ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হলেও সীমিত পরিসরে ব্যবসা-বাণিজ্য শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ঈদ সামনে রেখে আগামী ১০ মে থেকে খুলছে হাটবাজার, ব্যবসা কেন্দ্র, দোকানপাট ও শপিংমল। তবে ব্যবসা-বাণিজ্য শুরু করতে বেশ কয়েকটি শর্ত জুড়ে দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (৫ মে) মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি, দেশের সব বাণিজ্য সংগঠন ও চেম্বারের সভাপতি এবং চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতির কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, ‘কোভিড-১৯ রােগের বিস্তার রােধ এবং পরিস্থিতি উন্নয়নের লক্ষ্যে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকার আগামী ৭ থেকে ১৬ মে পর্যন্ত (সাপ্তাহিক ছুটিসহ) সাধারণ ছুটি বৃদ্ধি /জনসাধারণের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা/ সীমিত করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রমজান ও ঈদুল ফিতরকে বিবেচনায় রেখে সরকার সীমিত পরিসরে শর্তসাপেক্ষে ব্যবসা-বাণিজ্য চালুর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।’

‘শর্তসাপেক্ষে সীমিত পরিসরে দোকান-পাট ও শপিংমল আগামী ১০ মে থেকে সীমিত আকারে চালু করা যেতে পারে এবং সে অনুযায়ী প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরােধ করা হলাে।’

তবে এ জন্য চিঠিতে চারটি শর্তের কথা বলা হয়। তা হলো-

১. দোকানপাট ও শপিংমল সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টার মধ্যে সীমিত রাখতে হবে।

২. দোকানপাট ও শপিংমলে কেনাবেচার সময় পারস্পরিক শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধির প্রতিপালন নিশ্চিত করতে হবে।

৩. প্রতিটি শপিংমলে প্রবেশের ক্ষেত্রে হাত ধােয়াসহ হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ঘােষিত সতর্কতা গ্রহণ করতে হবে।

৪. শপিংমলে আগত যানবাহনকে অবশ্যই জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা রাখতে হবে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap