আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইট রাখাকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ীর মাথা ফাটিয়ে দোকান ভাংচুর

বিশেষ প্রতিনিধি, সাভার ঢাকা-

সাভারে ইজিবাইক থেকে ইট নামিয়ে রাখাকে কেন্দ্র করে এক ব্যবসায়ীকে মারধর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক বখাটের বিরুদ্ধে। এঘটনায় ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে এঘটনায় আশুলিয়া থানার ধলপুর এলাকার রনি (২৯) ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম অপু।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলে মারধর ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটায় রনি।

অভিযুক্তরা হলেন- আশুলিয়ার ধলপুর দক্ষিণপাড়া এলাকার মো. হানিফ মিয়ার ছেলে মো. রনি (২৯), রবিউল ইসলামের ছেলে জুয়েল (২৮), রবিন (২০), মোতালেবের ছেলে সেলিম (২২) ও জয় (২০)। তারা সবাই এলাকার চিহ্নিত বখাটে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম অপু একই এলাকার আলী আহমেদ শেখের ছেলে। তিনি স্যানিটারি ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করেন। অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টার দিকে ভুক্তভোগীর ভাই হারুন অর রশিদ বাড়িতে নির্মাণ কাজ করার জন্য নিজের ইজিবাইকে করে বাড়ির সামনে ইট নিয়ে যায়। বৃষ্টির ভিতরে ইজিবাইক থেকে ইট নামানোর সময় অভিযুক্ত রনির মা কুনু বিবির সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় ভুক্তভোগী বিষয়টি মিটমাট করে তার দোকানে চলে যান। কিছুক্ষণ পর অভিযুক্ত রনি তার দলবল নিয়ে ভুক্তভোগীর স্যানীটারি দোকানে হারুনকে খুঁজতে যায়। তাকে না পেয়ে আমার অপর ভাইকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এসময় অপু বাঁধা দিলে তার দোকানে অনধিকার প্রবেশ করে বোধড়ক মারধর করে ও দোকান ভাঙ্গচুর করে প্রায় ২০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করে চলে যায়। এঘটনায় স্থানীয়দের সহায়তায় ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসা নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসলামুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্তে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap