আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঢাকা-১৯ আসনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)

সাভার উপজেলার একাংশ ও আশুলিয়া থানা নিয়ে গঠিত ঢাকা-১৯ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ডাঃ এনামুর রহমান দুই দুবার মনোনয়ন পেলেও এবার মনোনয়নের ক্ষেত্রে ঘটতে পারে ভিন্ন চিত্র।
এমনটাই মনে করছেন সাভার আশুলিয়ার প্রবীণ রাজনীতিবিদরা। ইতিমধ্যেই প্রার্থীতা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদের প্রভাবশালী এক নেতা ।
এছাড়াও ওপেনে ঘোষণা না দিলেও গুঞ্জন রয়েছে স্থানীয় প্রভাবশালী অন্যান্য নেতারাও ঢাকা-১৯ আসনে প্রার্থিতার প্রত্যাশী।

১৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১১টায় আশুলিয়া প্রেসক্লাব চত্বরে, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন।

এর আগে আশুলিয়া প্রেসক্লাব চত্বরে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে ফুলদিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি ঢাকা-১৯ আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী বলে ঘোষণা করেন। এসময় আশুলিয়া থানা মুক্তিযোদ্ধা সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও মুক্তিযোদ্ধারা, বেশকয়েকটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সহ ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মনোনয়ন প্রত্যাশী সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘সাভার পৌরসভা ও তিনটি ইউনিয়নে ভোট সংখ্যা ২ লক্ষ ৯২ হাজার, আশুলিয়া থানার ৫ টি ইউনিয়নে ভোট হচ্ছে ৫ লক্ষ ১৬ হাজার, তার মধ্যে ধামসোনা ইউনিয়নে ভোট ১ লক্ষ ৯৬ হাজারের কিছু বেশি, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি বিএনপি’র প্রার্থী আশুলিয়া থানা থেকে হয়, আওয়ামী লীগের প্রার্থী যদি আশুলিয়া থানা থেকে হয় তাহলে সে নির্বাচন অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক নির্বাচন হবে , এবং আমি মনে করি আমাকে যদি এই আসন থেকে মনোনয়ন দেয়া হয় বিএনপির যেকোনো প্রার্থীর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আমি নির্বাচনে জয়ী হতে পারব ইনশাআল্লাহ’। ‘আমি সহ আমাদের সকল নেতৃবৃন্দের দৃঢ় বিশ্বাস এবং আস্থা আছে এই জয়ের ব্যাপারে। আর বিএনপির প্রার্থী যেহেতু আশুলিয়া থেকেই হবে, এই নির্বাচনে আঞ্চলিকতার একটি বিষয়বস্তু থেকেই যায়। যেই এলাকা থেকে যে প্রার্থী হয় সেই এলাকার সাধারণ মানুষ দল মতের ঊর্ধ্বে উঠে সে প্রার্থীকে ভোট দেয়ার জন্য ভোটকেন্দ্রে যায়’ এ বষয়টি আপনাদের সকলেরই জানা’।

‘আমার নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এই আসন থেকে যাকে মনোনয়ন দিবেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি সেই আস্থা আমি সহ আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দের আছে, এটি আমি দৃঢ়ভাবে বলতে চাই। এ ব্যাপারে কোন আপোষ নেই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত দিবেন সে সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা সবাই কাজ করবো, সে বিষয়ে আমরা সবাই অঙ্গীকারবদ্ধ’।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap