আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

২২ কোটি টাকার জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প ও তৈরি মেশিন সহ আটক ১০

বিশেষ প্রতিনিধি, সাভার (ঢাকা)

সাভারসহ আশপাশের এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ২২ কোটি টাকার জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প সহ চক্রের ১০ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৪। এসময় তাদের কাছ থেকে জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প তৈরীর মেশিন ও বিপুল পরিমান অন্যান্য সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।
বুধবার ১৪ জুন বিকেলে র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান, একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি মাধ্যমে জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প উদ্ধার ও চক্রের সদস্যদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এর আগে মঙ্গলবার রাতে র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখা এবং র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল সাভার আশুলিয়া ও মানিকগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে চক্রের মূল হতা সহ দশ জনকে আটক করে।
আটককৃতরা হল মানিকগঞ্জ সদর থানার মোঃ সোহেল কাজী (৩১), পিতা-খালেক কাজী, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম @জাহিদ(৪০), পিতা-মৃত চাঁন মিয়া, মোছাঃ সাবিনা ইয়াছমিন(৩০), স্বামী-সোহেল কাজী, মোছাঃ শাহনাজ আক্তার(৩১), স্বামী-জাহাঙ্গীর আলম, একই জেলার ঘিওর থানর মোঃ সোহেল রানা(৩৫), পিতা-সিদ্দিকুর রহমান, দৌলতপুর থানার মোঃ সাব্বির হোসেন(২২), পিতা-আবু তালেব, হরিরামপুর থানার কামরুল হাসান (২৬), পিতা-মৃত ইউসুফ আলী, মোঃ সুমন(২২), পিতা-মৃত শেখ জমির, বিল্টু(১৯), পিতা-মৃত চাঁন মিয়া, মোঃ সেন্টু মিয়া(২৫), পিতা-মৃত চাঁন মিয়া।
তারা সবাই সাভার ও মানিকগঞ্জে বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প ও কোর্ট ফি তৈরি করে ব্যবসা করে আসছিল।
তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ৫০০ টাকার ৩,৮০,৮৬০টি, ২০০ টাকার ৬২,০০০টি, ১০০ টাকার ৯২,২০০টি, ৫০ টাকা ৬০,৭৬০টি, ২০ টাকার ৩২,২০০টি, ১০ টাকার ৪,২১,৯০০টি, ৫ টাকার ৯,০০০টি, ৪ টাকার ৩৬,৯০০টি, ২ টাকার ৫,৬০০টি সহ সর্বমোট ১১,০১,৪২০টি স্ট্যাম্প যার মোট মূল্য ২২,০১,৪৫,৮০০/- (বাইশ কোটি এক লক্ষ পঁয়তাল্লিশ হাজার আটশত) টাকা এছাড়াও ৩টি পারফেক্ট মেশিন ২০টি স্ট্যাম্প তৈরীর প্যাটেন্ট সহ নগদ ৩০,৭৪৫/- টাকা ও বিপুল পরিমান অন্যান্য সরঞ্জামাদি।

র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারি যে, একটি প্রতারক চক্র দীর্ঘদিন যাবত আশুলিয়া বলিভদ্র এলাকায় অবৈধ জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প ও কোর্ট ফি তৈরি করছে। উক্ত প্রতারক চক্রকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার লক্ষে গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করলে, জনা যায় মূল হোতা সোহেল কাজী এর মাধ্যমে পুরো চক্রটি পরিচালিত হচ্ছে। গ্রেফতারকৃত সোহেল কাজী বিভিন্ন প্রিন্টিং প্রেস এ চাকুরীর সুবাদে রেভিনিউ স্ট্যাম্প তৈরীর কাজ রপ্ত করেছে। সে আশুলিয়ায় অবস্থিত ‘কনফিডেন্স প্রিন্টিং’ ছাপা খানায় জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প মূদ্রণের কাজ শুরু করে। চক্রটি রাজধানীর উত্তরা, বনানী, গুলশান, সাভার ও টঙ্গীসহ  দেশের বিভিন্ন আদালতে কোর্ট ফি ও অবৈধ জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প সরবরাহ করত। এছাড়াও বিভিন্ন অনুমোদিত ভেন্ডরদের নিকট কমমূল্যে জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প ও কোর্ট ফি সরবরাহ করত।
এই র‌্যাব অফিসার আরো জানান যে, চক্রটির প্রাথমিক পর্যায়ে ০১ রীম কাগজের মাধ্যমে জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প তৈরি করতে গড়ে ৩০/৪০ হাজার টাকা খরচ হত, যা রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আনুমানিক ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকায় বিক্রি করত। এভাবে তারা প্রতি মাসে ৮-১০ রীম কাগজ দিয়ে জাল স্ট্যাম্প তৈরি করে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি করে আসছিল।
গ্রেফতারকৃত সোহেল কাজীর বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জ থানায় একটি মামলা রয়েছে এবং উক্ত মামলায় সে কারাভোগ করেছে।গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap