আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দুই সেলফি পরিবহনের প্রতিযোগিতায় প্রাণ হারালো কিশোরী

বিশেষ প্রতিনিধি, সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি
পাটুরিয়া থেকে গাবতলীগামী দুইটি সেলফি পরিবহনের রেষারেষিতে প্রাণ হারালো এক কিশোরী। ওই কিশোরী তার মামার সাথে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। এ সময় দুই বাসের রেষারেষিতে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়লে সেলফি পরিবহনের চাকারতলে পৃষ্ঠ হয়ে মারা যায় শিলা(১৬) নামের  ঐ কিশোরী।
শনিবার ২৭ মে দুপুর ২ঃ০০ টার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় অপর পাশে (সাভার কেন্দ্রীয় গো প্রজনন ও দুগ্ধ খামার) ডেইরি গেটের সামনে ঢাকা গামী লেনে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।
নিহত শিলা গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী থানার শিকরামপুর গ্রামের শফিকুলের মেয়ে। সে মাদ্রাসার ছাত্রী ছিলেন বলে জানা যায়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাকাগামী লেনে যাত্রী উঠানোর জন্য একটি সেলফি পরিবহন দাঁড়ালে, পেছনে থাকে আরেকটি সেলফি পরিবহনের বাস আগে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় রেষারেষি শুরু করে। এতে মোটরসাইকেল আরোহী হজরত আলী ভাগ্নি শিলা (১৬) ও মেয়ে সুমাইয়া (৮)কে নিয়ে দুই বাসের মাঝে পড়ে যায়। এসময় সেলফি পরিবহনের চাপে ভাগ্নি শিলা পড়ে গেলে, অন্য সেলফি পরিবহনটি তার মাথার উপর দিয়ে চাকা উঠিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলে শিলা নিহত হয় এবং হজরত আলী ও তার মেয়ে সুমাইয়া গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা একজন ড্রাইভার সহ সেলফি পরিবহনের ঢাকা মেট্রো গ- ১৫৯০৬৮ ও ঢাকা মেট্রো গ-১৩১৮২৬ বাস দুটিকে আটক করে।
সাভার হাইওয়ে থানার ওসি আজিজুল হক প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বলেন, সেলফি পরিবহনের বাস দুটি একটি আরেকটির আগে যাওয়ার জন্য প্রতিযোগিতা করলে, মোটরসাইকেল আরোহী বাস দুটির মাঝে পড়ে দুর্ঘটনা শিকার হয়। এ সময় মোটরসাইকেল চালকের ভাগ্নি শিলা আক্তার নামের এক কিশোরী নিহত হয়েছে। মোটরসাইকেল চালক ও তার আট বছরের মেয়ে গুরুতর আহত হলে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘাতক সেলফি পরিবহনের একজন ড্রাইভার সহ বাস দুটিকে আটক করা হয়েছে। অন্য ড্রাইভার পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও তাকে আইনের আওতায় আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap