আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গাজীপুরের বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে কাউন্সিলরের সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিনিধি (ঢাকা) :

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ দবির হোসেন সরকার সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। এসময় কাউন্সিলর দবির হোসেন সরকার, আওয়ামী লীগ পরিবারের সম্মানিত ব্যক্তিদেরকে সম্মান হানি ও তার নিজ পরিবারের ব্যাপারে জাহাঙ্গীর আলম কটুক্তি করছেন বলে অভিযোগ করেন।

রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় গাজীপুরের ৫ নং ওয়ার্ডের সূরাবাড়ি রাইচ মিল এলাকায়, তার নিজ কার্যালয়ে এ সাংবাদ সম্মেলন করেন।

সাংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে কাউন্সিলর বলেন, ‘জাতির মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করার অপরাধে গাজীপু মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক থেকে বহিষ্কার ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের
মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম। সেই বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুরের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গিয়ে আওয়ামী লীগ পরিবারের সম্মানিত ব্যক্তিদেরকে সম্মান হানি করে বক্তব্য দিচ্ছেন। যাহা গাজীপুরে মানুষের মধ্যে চলছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া’।

তিনি আরো বলেন ‘গত ১৮ মার্চ রোজ শনিবার সিটি করপোরেশনের ৫ নং ওয়ার্ডের জহুরা বেগম স্কুলের বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিল গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। উক্ত অনুষ্ঠানে এসে বক্তব্য দিতে গিয়ে আমার পরিবার ও আমাকে নিয়ে ও আওয়ামী পরিবারের সম্মানিত ব্যক্তিদের কে নিয়ে ভিবিন্ন রকমের বাজে মন্তব্য করে বক্তব্য দিয়েছেন যাহা আমার পরিবার ও আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে এবং আমার পরিবারের মান ক্ষুন্ন হয়েছে’।

এর তীব্র নিন্দা জানান তিনি।তাকে ও তার পরিবারের উপর বাজে মন্তব্য করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা প্রত্যাহার করে ক্ষমা না চাইলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলেও সাংবাদিক সম্মেলনে জানান তিনি।

কাউন্সিলর মোঃ দবির হোসেন সরকার বলেন, ‘আমি আপনাদের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর কুটুক্তিকারী বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম কে জানাতে চাই, আমার দাদা মরহুম সবেদ আলী সরকার দীর্ঘ দিন কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং সাভার থানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন এবং আমার বাবা মরহুম গিয়াস উদ্দিন সরকার কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং বঙ্গবন্ধুর অত্যান্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন’। ‘আমার চাচা জনাব সোহরাব উদ্দিন সরকার ১০ বছর কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং আমার বড় ভাই জনাব শওকত হোসেন সরকার কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১১ বছর চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আমার ছোট ভাই জনাব কবির হোসেন সরকার আশুলিয়া থানা আওয়ামী যুব লীগের আহবায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসতেছেন এবং আমি দবির সরকার গাজীপুর মহানগর ০৫ নং ওয়ার্ডের পর পর দুই বার নির্বাচিত কাউন্সিলর এবং কাশিমপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক-১ হিসাবে দায়িত্ব পালন করিতেছি’।

প্রিয় সাংবাদিক ভাই ও বোনেরা আপনাদের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর কুটুক্তিকারী জাহাঙ্গীর আলম কে প্রশ্ন করতেছি আপনার দাদা কি ছিলেন? আপনার বাবা কি ছিলেন? আপনি মেয়র হওয়ার আগে কি ছিলেন? আপনার বংশের পরিচয় কি? আপনার সৎ সাহস থাকলে মিডিয়ার সামনে আপনার পরিচয় তুলে ধরবেন

তিনি সাবেক এই মেয়রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ করে বলেন,’প্রিয় সাংবাদিক ভাই ও বোনেরা আপনাদের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর কুটুক্তিকারী জাহাঙ্গীর আলম কে প্রশ্ন করতেছি আপনার দাদা কি ছিলেন? আপনার বাবা কি ছিলেন? আপনি মেয়র হওয়ার আগে কি ছিলেন? আপনার বংশের পরিচয় কি? আপনার সৎ সাহস থাকলে মিডিয়ার সামনে আপনার পরিচয় তুলে ধরবেন’।

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

সাংবাদিক সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন, কাশিমপুর থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন নান্নু, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক দেওয়ান মোঃ জালাল উদ্দিন, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নজরুল বেপারীসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap