আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

প্রেমিকের বাসায় এসে প্রেমিকার আত্মহত্যা 

বিশেষ প্রতিনিধি, সাভার (ঢাকা)
সাভারে গোপনে ০৬ মাস আগে প্রেমিক  বিয়ে করেছে জানতে পেরে, প্রেমিকের বাসায় এসে আত্মহত্যা করেছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী।
ঘটনার পর পর প্রেমিককে পুলিশ হেফাজতে নেয় আশুলিয়া থানা পুলিশ। পুলিশ বলছে, আটক প্রেমিক গোপনে আরেকজনকে বিয়ে করায় ওই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন।
বুধবার রাতে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায় আশুলিয়া থানা পুলিশ।
আটক প্রেমিক ফিরোজ আলম ঢাকার দোহার থানার রাধানগর গ্রামের ওমর আলীর ছেলে। তিনি পেশায় একজন চিকিৎসক৷ আশুলিয়ার একটি পোশাক কারখানায় মেডিকেল অফিসার হিসেবে কাজ করেন।
প্রেমিকা নুসরাত মীম(২৬) সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির শিক্ষার্থী। তিনি বরিশাল জেলার মৃত শাহজাহান তালুকদারের মেয়ে।
আশুলিয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, প্রায় ৬ মাস আগে চিকিৎসক ফিরোজ আলম বিয়ে করেন। এ বিষয়টি জানতে পেরে আজ বুধবার দুপুরে আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকার ফিরোজের ভাড়া ফ্ল্যাটে যান নুসরাত। এসময় বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ফিরোজ তাকে কক্ষে রেখে বারান্দায় গিয়ে মুঠোফোনে কথা বলতে যান। এসময় নুসরাত বারান্দার দরজা আটকে নিজের ওড়না দিয়ে ফ্যানের সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেন। বিষয়টি জানলা দিয়ে দেখতে পেয়ে ফিরোজ চিৎকার করতে থাকেন। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি আশুলিয়া থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পরে তারা এসে দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেন।
তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের প্রেমিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবারের সদস্যরা এসেছেন। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap