আজ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আশুলিয়ায় গলায় ওড়না প্যাচানো পুরুষের মৃতদেহ উদ্ধার

বিশেষ প্রতিনিধি সাভার ( ঢাকা)

আশুলিয়ার পল্লিবিদ্যুৎ আর এ বি, রোড এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে, একজন অজ্ঞত ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে মৃতদেহটি যেই রুম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে, সেই রুমের ভাড়াটিয়া শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। ঘটনার পর থেকে ঐ ভাড়াটিয়া দম্পতি পলাতক রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

১৯ সেপ্টেম্বর রবিবার রাত ৯:৩০মি. এর দিকে, আশুলিয়া থানা পুলিশ আর এ বি রোডের আসলাম মন্ডলের বাড়ির,  এক ভাড়াটিয়ার রুম থেকে উদ্ধার করে অজ্ঞাতো লাশটি।

বাড়ির মালিক আসলাম মন্ডল জানায় গত চার পাঁচ মাস আগে সবুজ জেসমিন নামের এক দম্পতি তার বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেয়। ভাড়া নেয়ার সময় সবুজ রাজমিস্ত্রির পরিচয় প্রদান করে। স্ত্রীর জেসমিন বাসায় গৃহিণী হিসেবে থাকতো।

তিনি আরো বলেন, তবে গতকাল শনিবার রাতে আমাকে সবুজের স্ত্রী জেসমিন, তার দাদা শশুর বেড়াতে আসবে বলে জানিয়েছিলো। এরপর আজ রোববার সারাদিন ঘরে তালাবদ্ধ থাকলে সন্ধ্যার দিকে আমাদের সন্দেহ হয়। পরে তালা ভেঙ্গে ভিতরে বিছানার উপর অজ্ঞাত মধ্যবয়স্ক এক ব্যক্তির, গলায় ওড়না পেঁচানো মৃতদেহ দেখতে পাই আমরা। সাথে সাথে আশুলিয়া থানায় খবর দিলে পুলিশ রাতে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।
বাড়ির মালিক আসলাম মন্ডলের ভাড়াটিয়া দম্পতির নাম বাদে আর কিছুই জানানেই বলে জানান।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিলন ফকির বলেন, মধ্যবয়স্ক ওই ব্যক্তিকে ওড়না দিয়ে গতরাতে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। তবে তার পরিচয় মেলেনি। দম্পতি পরিচয়ে বাসা ভাড়া নেয়া সবুজ ও জেসমিন ঘটনার পর থেকে পলাতক। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার জেরে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিকে এখানে ডেকে এনে হত্যার পর পালিয়েছে ওই দম্পতি। এঘটনায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap