আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কুপিয়ে হত্যা

ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা, স্বামী হাসপাতালে ভর্তি

সোহেল রানা, পাবনা:

পাবনার ঈশ্বরদীতে শারমীন শিলা (৩২) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তার স্বামী আহত হয়েছেন। ঘটনার পর পর হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল ৬টার দিকে উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনশিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শারমিন শিলা ওই গ্রামের রানাউর রহমানের স্ত্রী। আটক সুমন আলী (৩০) একই উপজেলার সরাইকান্দি গ্রামের আজগর আলীর ছেলে।

ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, তিনতলা বাড়ির তৃতীয় তলায় থাকতেন তারা। গৃহবধূ শারমীন শিলা সাংসারিক কাজ করছিলেন। স্বামী ঘুমিয়ে ছিলেন। তার শ্বশুর-শাশুড়ি হাঁটতে বের হয়েছিলেন। বাড়ির প্রধান দরজা খেলা ছিল। এ সময় অভিযুক্ত সুমন বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূ শারমীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। তার চিৎকারে স্বামী বাঁচাতে এলে তাকেও আঘাত করেন হামলাকারী। তার সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে হামলাকারী সুমনকে বাড়ির ছাদ থেকে নিচে ফেলে দেন রানাউর। পরে এলাকাবাসী আহত অবস্থায় আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত সুমনকে আটক ও গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। আহত অবস্থায় স্বামীকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর অভিযুক্ত সুমনকে পুলিশি পাহারায় ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, হত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। তারপরও বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap