আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তুরাগ নদে ট্রলার ডুবি, নারী ও শিশুসহ মৃত ৩ নিখোঁজ ৪ 

বিশেষ প্রতিনিধি:

রাজধানী পার্শ্ববর্তী আমিন বাজার এলাকায় তুরাগ নদে শ্রমিকবাহী ট্রলারের সাথে বাল্কহেডের ধাক্কায় শিশু ও নারীসহ ৭ জন নিখোঁজ হয়েছেন। এঘটনায় নিখোঁজ ব্যক্তিদের ও ডুবে যাওয়া ট্রলারটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

শনিবার (০৯ অক্টোবর) সকাল আটটার দিকে ট্রলারডুবি ঘটনাটি ঘটে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ ঘটনায় শিশুসহ তিন জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরিরা। এখনো নিখোঁজ রয়েছে কমপক্ষে ৪ জন। ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন।

এর আগে,সকাল ৭টার দিকে আমিনবাজার থেকে রাজধানীর গাবতলীতে যাওয়ার পথে তুরাগ নদ পারপারের সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজের তালিকায় রয়েছে, মোছা রুপায়ন বেগমের ছেলে আরমান (৪), জেসমিন (১৫ মাস), শায়লা বিবি (৩০), শিশু রিপন (২৬ মাস), আরমিনা (৮) ও ফারহান মনি (৫)।

সাভার ফায়ার সার্ভিসের ওয়্যারহাউজ ইন্সপেক্টর মাহফুজুর রহমান মাহফুজ বলেন, সকালে তুরাগ নদের উত্তরপাশ আমিনবাজার থেকে গাবতলী ল্যান্ডিং স্টেশনে একটি ট্রলারযোগে কাজে যাচ্ছিলেন ১৮জন শ্রমিক। যাদের অধিকাংশই নারী শ্রমিক ও তাদের শিশু সন্তানরা ছিলেন। মূলত তারা ল্যান্ডিং স্টেশনের পাশে কয়লার ডিপোতে কাজ করতেন। কাজের সময় ওই শ্রমিকদের শিশুদের পাশে বসিয়ে রাখতেন তারা। তুরাগ নদ পারাপারের সময় হঠাৎ একটি বালুবাহী বাল্কহেডের সাথে ধাক্কা লাগে ট্রলারটি ডুবে যায়। এসময় দুই নারী ও পাঁচ শিশু তলিয়ে যায়ম বাকীরা সাঁতরে তীরে উঠে আসে। পরে খবর পেয়ে তাদের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধারকাজ শুরু করেন। পরে রাজধানীর সদর দপ্তর থেকে আরও তিনটি ইউনিট এসে উদ্ধারকাজে যোগ দেয়। কিন্তু এখনো ডুবে যাওয়া ট্রলারটির সন্ধান পাওয়া যায়নি। নদীতে অনেক স্রোত রয়েছ।

আমিনবাজার নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আলমগীর শেখ বলেন, ট্রলারটিকে ধাক্কা দেয়া বাল্কহেল্ডিককে এখনও আটক করা সম্ভব হয়নি। ভোরে ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে যায় বাল্কহেল্ডটি। তবে বাল্কহেল্ডটি আটকের চেষ্টা চলছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap