আজ ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আশুলিয়ায় ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে মাদ্রাসা প্রধান সহ দুই শিক্ষক আটক

সাভার প্রতিনিধি:

আশুলিয়ায় সাইফুর রহমান (১৮) নামে এক ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে মাদরাসার প্রধান শিক্ষক সহ দুই শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

আহত শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।খলিলুর রহমান জানান, সাইফুর বিগত তিন বছর ধরে ওই মাদরাসায় লেখাপড়া করে আসছে। চালিয়ে ভ্যান চালিয়ে অনেক কষ্টে টাকা জমিয়ে তার লেখাপড়ার খরচ দিচ্ছি। পরীক্ষার ফরম পূরণের কথা বলে কয়েক দিন আগে সে আমার কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা নিয়ে ।

 

সে টাকা জমা দিলেও হুজুর ফরম পূরণ করেনি। গত রোববার আমার মেয়ের বাসা থেকে মাদরাসায় আসে সাইফুর। পরে সোমবার হুজুরের কাছে ফরম পূরণ না হওয়ার কারণ জানতে চাইলে মাদরাসার প্রধান শিক্ষক ও তার ভাই সাইফুরকে ব্যাপক মারধর করে। পরে তাকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে রাস্তার পাশে ফেলে যায় তারা। একজন ভ্যানচালক তাকে দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে আমার শ্যালকের বাসায় নিয়ে যায়।

 

বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক আর মামুন কবির।

 

এর আগে মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) রাত সাড়ে ১১টার দিকে আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুৎ এলাকার তাহফিজুল কোরআন হাফিজিয়া মাদরাসা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়। গ্রেফতারর হলো- তাহফিজুল কোরআন হাফিজিয়া মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা আকরাম হোসেন ও তার ভাই সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহমান নবী।

 

ভুক্তভোগী সাইফুর রহমান বাগেরহাটের শরণখোলা থানার উত্তর কদমতলা এলাকার বাসিন্দা খলিলুর রহমানের ছেলে।

 

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আল-মামুন কবির বলেন, অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত দুই শিক্ষকে গ্রেফতার করা হয়। বুধবার সকালে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের শেষে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap