আজ ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কালিয়াকৈরে গণধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, তিন ধর্ষক গ্রেপ্তার

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:

 

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ছবি নেওয়ার জন্য ডেকে নিয়ে ষষ্ঠ শ্রেনীর এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গণধর্ষণের ভিডিও ধারণের পর তাকে ফেলে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা। ধর্ষণের অভিযোগে তিন ধর্ষককে গ্রেপ্তারের পর শনিবার দুপুরে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কালিয়াকৈর উপজেলার কাথাচুড়া এলাকার আঃ সবুরের ছেলে শরিফ (২৮), পাশের রামচন্দ্রপুর এলাকার ইব্রাহিম খলিলের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (২২) ও পাশের কড়ইতলী এলাকার আঃ করিমের ছেলে রুবেল হাসান (২১)।

 

স্কুলছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বখাটে শরিফ ওই স্কুলছাত্রীকে মোবাইলে ফোন করে। ওই সময় ফোনে সে ওই স্কুলছাত্রীকে জানায় তাহার নিকট তার ছবি রয়েছে। ওই ছবি নিতে পাশের গ্রাম সিরাজপুরে একটি নির্জন স্থানে তার কাছে না গেলে সেগুলো ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেয়।

 

পরে ইন্টারনেটে ছবি যাওয়ার ভয়ে বাধ্য হয়েই ওই স্কুলছাত্রী তার কথা মতো ওই গ্রামে যাচ্ছিল। যাওয়ার সময় ওই এলাকার ডিপেরচালা নামক স্থানে পৌছলে আগে থেকে উৎপেতে থাকা শরিফ, রাশেদুল ও রুবেল পরিকল্পিতভাবে তার মুখ চেপে ধরে জোরপুর্বক তাকে পাশের কাঠ বাগানের ভিতর নিয়ে যায়। পরে তারা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই স্কুলছাত্রীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। এসময় তাদের মোবাইল ফোনে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে ওই ধর্ষকরা।

 

পরে ওই স্কুলছাত্রীকে কাঠ বাগানের নির্জনস্থানে ফেলে রেখে তারা পালিয়ে যায়। এরপর ওই স্কুলছাত্রী বাড়িতে গিয়ে তার মাকে ঘটনাটি বললে পরিবারের লোকজন সঙ্গে সঙ্গে ফুলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পে জানায়। এর পরের দিন দিন শুক্রবার দুপুরে পুলিশ কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই তিন ধর্ষককে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও সহ মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর বাবা আঃ কুদ্দুস বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। শনিবার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষকদের গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

কালিয়াকৈর থানার ওসি (তদন্ত) রাজীব চক্রবতর্ী জানান, ওই স্কুলছাত্রীর ছবি আনার জন্য তাকে ডেকে পাঠায় ধর্ষকরা। সে ছবি আনতে গেলে তারা কাঠবাগানে নিয়ে তাকে গণধর্ষণ করে। এ সময় তারা তাদের মোবাইল ফোনে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

 

 

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap