আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকরাই হলেন প্রকৃত মানুষ তৈরি করার কারিগর -কালিয়াকৈরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

ফজলুল হক, কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রদিনিধি:

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আলহাজ আ্যাড. আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকরাই হলেন প্রকৃত মানুষ তৈরি করার কারিগর। আপনারাই আসল কারিগর। নরম মাটি দিয়ে যে কোন জিনিস বানাইতে আপনারা পারবেন। কিন্তু মাটি যখন শক্ত হয়ে যায় তখন কিছু করা যায় না। কাজেই আপনাদের কাছে সবচেয়ে বড় গুরুদায়িত্ব ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে গড়ে তোলার জন্য। তিনি গতকাল রবিবার দুপুরে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা হলরুমে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাত উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এসময় গাজীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা কাজী হাফিজুল আমিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, আপনাদের আমি একটি কথা স্বরণ করিয়ে দেই। যুদ্ধবিদ্ধস্ত দেশ ছিল, ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু যেদিন দেশ স্বাধীন করেন। তখন ১৯৭২ সালে কিছুই ছিল না। আমাদের গোডাউনে খাবার ছিল না, বৈদেশিক মুদ্রা ছিল না, রাষ্ট্রীয় কোষাগারে টাকা ছিল না। কোন প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক দাবিও করেনি, আন্দোলনও করেনি যে আমাদের সরকারি করণ করা হোক। বঙ্গবন্ধু স্বতঃস্ফূর্ত নিজের ইচ্ছায় স্বক্রধিত হয়ে তিনি এক কলমের খোঁচায় ৩৭ হাজার স্কুলকে সরকারি করণ করে দিয়েছিলেন। তখন খাদ্যের ঘাটতির সময় রেশন ও দিয়েছিলেন শিক্ষকদের। তারপর বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর ৩০ বছরে আমার মনে হয় না ৩৭ হাজারের জায়গায় ৩৭০টি স্কুলও সরকারিকরণ করা হয় নাই। তার স্বাক্ষী আপনারা। সারা বাংলাদেশে জিয়া, এরশাদ, খালেদাজিয়ার আমলে ৩০ বছরে কয়টা স্কুল সরকারিকরণ করা হয়েছিল। আমার মনে হয় যে ৩৭০টিও হবে না । আর আমাদের আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সফল রাষ্ট্রনায়ক দেশ রত্ন শেখ-হাসিনা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা আসার পর ২০০৯ সালে ক্ষমতায় এসেই আবার ২৬ হাজার ১৯৩ টি প্রাইমারি স্কুলকে সরকারিকরণ করেন। শুধু তাই না যেসব স্থানে প্রাইমারি স্কুল তৈরি করতে পারে নাই, মানুষের সামর্থ নাই, সেখানে আমরা প্রাইমারি করে দিয়েছি ভবনসহ এবং শিক্ষকও নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আবার নতুন করে সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরো ৭ টি প্রাইমারি স্কুল করে দেয়া হবে।

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap