সঙ্গীত শিল্পী হওয়াই যার স্বপ্ন

বিনোদন ডেক্সঃ

সঙ্গীত শিল্পী, মিডিয়ায় কালের বিবর্তনের ধারাবাহিকতায় এক এক করে প্রতিনিয়ত যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন প্রতিভার মুখ। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন জলিন নাহার জলি। তার জন্মস্থান নীলফামারী জেলাধীন সৈয়দপুর থানার কদমতলী গ্রামে। বাবা মোঃ গোলাম মোস্তফা ও মাতা ছালেহা বেগম। বাবা-মা ছোট বেলা থেকে এখনও তাকে গানের প্রতি উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। নিজ প্রতিভা বিকশিত করা ও নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাওয়ার স্বপ্ন ডানায় ভর করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ছোটবেলায় তার গানের প্রথম হাতে খড়ি দেন জান্নাতুল ইসলাম কবির। তার চোখে মূখে বড় পর্দায় ভালোমানের একজন সঙ্গীত শিল্পী হওয়ার স্বপ্ন। ইতোমধ্যে বিভিন্ন মঞ্চে গান পরিবেশন করে যথেষ্ট সুনাম কুঁড়িয়েছেন।



খুব শীঘ্রই বাজারে আসছে তার প্রথম মিউজিক ভিডিও।
এ মিউজিক ভিডিওতে তিনি নিজেই মডেলিং করেছেন। তার জুটি হিসেবে কাজ করেছেন শহীদুল ইসলাম।
নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জের পল্লীর প্রাকৃতিক লীলাভূমিতে এটির দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। যা দর্শকদের ভালো লাগবে বলে তিনি আশাবাদী।
তিনি বিশ্বাস করেন সফলতার চাবিকাঠি ছিনিয়ে আনতে হলে প্রথমে নিলসভাবে তাকে চেষ্টা করতে হবে।
অনেক সাধকেরা সাধনার বিনিময়ে অসাধ্যকে সাধ্য করে হাতের মুঠোয় বিজয়ের মুকুট ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন।
ইতিহাসে এর জ¦লজ্যান্ত প্রমাণ মেলে। মানুষ যে স্বপ্নে বিভোর সেই স্বপ্নকে ঘিরে সে যদি কঠোর পরিশ্রম আর নি রলসভাবে সাধনা চালিয়ে যায় তবে সে তার স্বপ্নের দুয়ারে পৌঁছতে সক্ষম হবেই।
উদীয়মান এই শিল্পী বলেন, বিনোদন হচ্ছে মানুষের মনের খোড়াক।
আর আমি মানুষের মনের খোড়াকের যোগান দিতে ছোটবেলা থেকেই গানের জন্য শ্রম দিয়ে যাচ্ছি। কন্ঠ ভালো হলেই সে শিল্পী নয়।
শিল্পী হতে হলে তাকে সঙ্গীত জগতের সকল নিয়ম সম্পর্কে জানতে হবে। তাহলেই সেই একজন ভালো মানের শিল্পী হতে পারবে।
সামনের দিকে যেন শ্রোতাদের আরো ভালো কিছু উপহার দিতে পারেন এই জন্য তিনি সকলের দোয়া কামনা করেন।