রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সিগারেট বেশি দামে বিক্রি করায়, ব্যবসায়ীদের আটক করে মুচলেখা আদায়।

 

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, ভাটারা, রূপনগনর ও রূপগঞ্জ থানা এলাকায় ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানীর কয়েকটি শ্রেণির সিগারেট বেশি দামে বিক্রির অপরাধে ১৪ জন বিক্রেতাকে আটক করে, এভাবে বেশি দামে বিক্রি না করার মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়, রূপনগর, যাত্রাবাড়ী, ভাটারা ও রূপগঞ্জ থানা পুলিশ।

গতকাল বেলা ১২ টার দিকে যাত্রাবাড়ী থানার মৃধাবাড়ি মাদরাসা বাজার ও মেন্দিবাড়ি এলাকার ৬ জনকে আটক করে যাত্রাবড়ী থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন ১। মোঃ আজাদ, আজাদ স্টোর, ২) মোঃ রফিক, ৩) মোঃ হাসান ৪) মো সফিউল্লাহ, ৫) মোঃ ইমন ও ৬)  মোঃ কালাম ।অভিযান পরিচালনা করেন যাত্রাবড়ী থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ জাহিদ ।

এ দিকে রূপনগর থানাধীন দুয়ারীপাড়া মোড়, বটতলা ও দুয়ারীপাড়া ডিগ্রী কলেজ এলাকা থেকে ৫জনকে আটক করে রূপনগর  থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন ১) মোঃ খালেক ২) মোঃ মাকসুদ মিয়া, ৩) মোঃ রুবেল ৪) আঃ সাত্তার ৫) মোঃ নাজমুল হোসেন। অভিযান পরিচালনা করেন রূপনগর থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ আজগর আলী।
গত সোমবার বেলা ২টায় ভাটারা থানাধীন ১০০ ফিট নতুন বাজার এলাকায় মোঃ আসরাফ কে আটক করে ভাটারা থানা পুলিশ। অভিযান পরিচালনা করেন উপ-পরিদর্শক মোঃ জাফর।

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জ থানার অধীনে মইকুলি বাসস্ট্যান্ডে বেলা ১.৩০ ঘটিকার সময় ন্যায্যমূল্য থেকে অতিরিক্ত মূল্যে সিগারেট বিক্রির দায়ে ৫জন বিক্রেতাকে আটক করে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন ১। রবিউল ২। কামাল ৩। শরিফ ৪। মোস্তাফা ৫। দেলোয়ার। ।

পুলিশ জানায় সিগারেট ভোক্তাদের অভিযোগ এবং বেশি দামে সিগারেট বিক্রির সত্যতা নিশ্চিত হয়ে পৃথক পৃথক অভিযানে এসব বিক্রেতাদের আটক করা হয়। পরে যাত্রাবাড়ী, রূপনগর ভাটারা ও রূপগঞ্জ এলাকায় ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির নেতৃত্ববৃন্দের অনুরোধে এবং পরবর্তীতে বেশি দামে আর সিগারেট বিক্রি না করার বিক্রিত  মুচলেকা নিয়ে আটককৃত বিক্রেতাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ জানায়, বেশ কিছুদিন যাবত সিগারেট ভোক্তারা অভিযোগ করে আসছেন যে, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ৪ টাকা মূল্যের পাইলট ডার্বি ও হলিউড সিগারেট রীতিমত ৫টাকা দরে বিক্রি করে আসছেন আটককৃত সিগারেট বিক্রেতারা। এই অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ে আটককৃত বিক্রেতাদের দোকান থেকে একাধিক ক্রেতার  মাধ্যমে ৪ টাকা মূল্যের কয়েকটি পাইলট, ডার্বি ও হলিউড সিগারেট ৫ টাকা দামে কিনে বেশি দামে সিগারেট বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।