বিএনপি জামায়াত সরকারের সময় দেশে ক্যাসিনো শুরু হয়েছিলো: ওবায়দুল কাদের।

বিশেষ প্রতিনিধি:

বিএনপি জামায়াত সরকারের সময় দেশে ক্যাসিনো শুরু হয়েছিলো, তারা শুরু করেছে আমরা এটার শেষ করবো, বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বুধবার দুপুরে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয়ের তত্ত্বাবধানে ও ২৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড এর বাস্তবায়নে, সাভার সেনানিবাসের ঢাকা আরিচা মহাসড়কে সেনানিবাসস্থ শ্যুাটিং ক্লাব পয়েন্টে, আন্ডারপাস নিমার্ণ প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে বলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, বনানী,মাওনা,ফেণী ফ্লাইওভার, মেরীন ড্রাইভ সহ ৭৫০কি.মি. সিমান্ত সরকের মত বড় বড় প্রকল্প বাংলাদেশ শেনাবাহীনি সফল ভাবে সম্পন্ন করেছে। এরি ধারাবাহিকতায় ঢাকা আরিচা মহাসড়কে সেনানিবাসস্থ শ্যুাটিং ক্লাব পয়েন্টে আন্ডারপাস নিমার্ণ প্রকল্পটি সম্পূর্ন হয়েছে।

ক্যাসিনো অভিযান সম্পর্কিত বিষয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন দেশে চুনাপুটি আর রাঘব বোয়াল নয়, যার বিরুদ্ধে দুর্নীতি পাওয়া যাবে তাকেই আইনের আওতায় এনে গ্রেপ্তার করা হবে , তিনি আরও বলেন দেশে দুর্নীতি সন্ত্রাস মাদকের বিরুদ্ধে এ অভিযান চলবে, কোন দুর্নীতি বাজ লোককে ছাড় দেওয়া হবে না।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই মদ ও জুয়া সর্বপ্রথম নিষিদ্ধ করেছেন। বিএনপি সরকারের সময় দেশে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও মদ জুয়ার আসর বসেছিলো, তাড়া এর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি, কিন্তু আমরা এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি জানিয়ে তিনি আরও বলেন, দেশে টেন্ডারবাজি সন্ত্রাস দুর্নীতি করলে কেউই রেহাই পাবে না। যতদিন পর্যন্ত দেশে দুর্নীতি থামবে না ততদিন পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে, এরপর তিনি একথাও বলেন যে, খালেদা জিয়া যা পারেনি শেখ হাসিনা তা পেরেছেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন দুযোর্গ ব্যবস্থাপা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড.এনামুর রহমান,সাভার সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আকবর হোসেন, সাভার এরিয়া মেজর জেনারেল মোঃ আকবর হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার ইন চীফ, মেজর জেনারেল ইবনে ফজল সায়েখুজ্জামান, ২৪ ইঞ্জিনিয়ার কনষ্ট্রাকশন ব্রিগেড ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক কর্নেল এস এম আনোয়ার হোসেন, সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব, জাতীয় শ্রমিকলীগ আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সাধারন সম্পাদক লায়ন মোঃ ইমাম হোসেন।