শতাধিক কৃষক ক্ষতিগ্রস্থ, ইটভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় পুড়ছে গাছ পালা

সোহেল রানা, পাবনা প্রতিনিধিঃ

পাবনা সুজানগর উপজেলার চিনাখড়া বাজারের অদুরে বেথরিয়া নামক স্থানে মাদারী সরদার ব্রিকস ফিল্ডের ইট ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় বেথরিয়া গ্রামসহ সামন্যপাড়া, রাজাপুর, হৈজোড়, বহাল বাড়িয়া গ্রামের শতাধিক কৃষক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।




বিষাক্ত ধোঁয়ায় ঐ এলাকার কৃষক ও এলাকাবাসীর প্রায় ৩শ বিঘা জমির ধান ক্ষেত পুড়ে গেছে। পাশাপাশি আম, কাঁঠাল, লিচু, বাঁশঝারসহ প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে।

মাদারি সরদার ব্রিকফিল্ডের মালিক আলিম সরদারের কাছে ক্ষয়ক্ষতি সম্বন্ধে জানতে চাইলে তিনি বলেন ভাটা চললে একটু আধটু ক্ষতি হবেই।

স্থানীয় কৃষকরা জানান ধোঁয়া বন্ধ না হলে বিষাক্ত রাসানিক বিষক্রিয়ায় নতুন ফসলের ক্ষেতসহ গাছাপালার ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার নিকট ভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন আমরা খুব শিঘ্রই মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে উক্ত ভাটার অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযান জালাবো।

ভাটার ম্যানেজার আবু হানিফের নিকট এলাকার কৃষকের ফসল ক্ষতিপূরণের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন কোন কৃষকের ফসল বা গাছপালার কোন ক্ষতি হয়নি। সামান্য গাছের পাতা ও ধানের পাতা লালছে হইছে। ছত্রাকনাসক ঔষধ দিলে ঠিক হয়ে যাবে।

ভাটার মালিকের ক্ষমতা অনেক। ভাটা সংলগ্ন সামান্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জনৈক্য শিক্ষক বলেন ভাটার কালো ধোঁয়ার ফলে প্রতিনিয়তই ছাত্র-ছাত্রীরা অসুস্থ হয়ে পড়ছে।

এ বিষয়ে স্কুল ম্যানেজিং কমিটি ও এলাকাবাসী ভাটাটি বন্ধ করার জন্য জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছে।




ভাটার মালিক হালিম সরদারের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে স্থানীয় পোষা গোন্ডা দ্বারা তাকে হত্যার হুমকি দেন।

বিষয়টি পাবনা জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা এলাকবাসী।

অন্যান্য খবরঃ

আশুলিয়ায় আঞ্চলিক কমিটির উদ্যেগে মে দিবস পালন