উইন্ডিজ এর বিপক্ষে বিশাল জয়ে ৫ম অবস্থানে বাংলাদেশ

বাংলা পেপার ডেস্ক :

সাকিব আল হাসান এ বিশ্বকাপকে নিজের বানাতে চান। অমন কথা অনেকের মুখেই শোনা যায়, কিন্তু কথা রাখতে পারেন খুব কম। কিন্তু সাকিবের ধাচ আলাদা, সেটা ক্যারিয়ারের সব সময় বোঝা গেছে। সেটা নতুন করে আরেকবার মনে করিয়ে দিলেন।

৯ম ওভারে যখন নেমেছিলেন বাংলাদেশের স্কোরটা তখন ভালোই ছিল। । ২১তম ওভার শুরু হতেই পেয়ে গেলেন ফিফটি। ৪০ বলে ফিফটি হয়ে গেল তার। ৭টি চার তার মাঝে। ওয়ানডেতে সর্বশেষ ৫ ম্যাচেই টানা ৫০ পেরোলেন সাকিব| বিশ্বকাপের প্রথম তিন ম্যাচেই ফিফটি ছাড়িয়েছেন |সর্বশেষ ম্যাচে সেটা সেঞ্চুরির কোটাও পেরিয়েছে।

এর মধ্যেই অবশ্য বাংলাদেশের ইনিংসে একটা ঝড় বয়ে গেছে। ১০ বল ও ১২ রানের মধ্যে বাজেভাবে বিদায় নিয়েছেন তামিম (৪৮) ও মুশফিক (১)। ৩ উইকেটে ১৩৩ রান বাংলাদেশের। সাকিবের সামনে তখনো বহু পথ বাকি, তাঁর সঙ্গী লিটন দাস নিজের অভিষেক বিশ্বকাপে খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচেই দুর্দান্ত খেলেন।

সাকিব যে পেরেছেন সেটা তো এরই মাঝে জানা হয়ে গেছে। উইন্ডিজ ফিল্ডারদের চোখের সামনে দিয়ে বল সীমানা পেরোতে লাগল। ফিফটিটা সেঞ্চুরি হলো। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড এক ইনিংস পরেই ১২ বল কমিয়ে আনলেন সাকিব। ততক্ষণে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হয়ে গেছে।

সাকিব গত ম্যাচেও এভাবে বোলারদের শাসন করেছিলেন। বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে প্রথমবারের মতো খেলতে নেমে প্রথম দুই তিনটি বলে একটু অস্বস্তি দেখা গিয়েছিলে। দুই তিনবার ব্যাটের কানা লেগে বল যে পেছন দিয়ে চার হয়েছে তাতেও লিটনের কোনো অবদান ছিল না। কিন্তু সে সব শটেই আত্মবিশ্বাস এসেছে। আর সে আত্মবিশ্বাসের ফলটা টের পেলেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। ৩৮তম ওভারের প্রথম তিন বল সীমানার এপারে পড়তে দেননি লিটন। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কোনো ব্যাটসম্যানের প্রথম ছক্কার হ্যাটট্রিকের রেকর্ডটা লিটন বুঝে নিলেন কী অবলীলায়! ওই ওভারেই এল ২৪ রান, এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে ব্যয়বহুল ওভার!

দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিবের চেয়ে আগ্রাসী ব্যাটসম্যান বাংলাদেশের ক্রিকেটেই কম এসেছে। তবু ফিফটি পেরিয়ে যাওয়া সাকিবকেই একটু পরে দ্রুত রান তোলায় টপকে গেলেন লিটন। ১৩৫ বলে ১৮৯ রানের চতুর্থ উইকেট জুটিতে সাকিবের অবদান ৮০। আর সাকিবের চেয়ে মাত্র ৩ বল বেশি খেলা লিটনের অবদান ৯৪। একটাই অতৃপ্তি, ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান একটু কম হয়ে যাওয়ায় সেঞ্চুরিটা পেলেন না লিটন।

দুর্দান্ত বাংলাদেশের কাছে ৭ উইকেটে হারল উইন্ডিজ|এর আগে গত বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের দেওয়া ৩১৮ রান তাড়া করে ছয় উইকেটে জয় পেয়েছিলেন মাশরাফীরা। এ বিশ্বকাপে কোনো দল আড়াই শ তাড়া করে জেতেনি এখনো। তিন শ ছাড়ানো স্কোর মানেই জয়ের নিশ্চয়তা।সেখানে ৫১ বল হাতে রেখেই কাজ সারল বাংলাদেশ।

২০ জুন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। সেমির স্বপ্ন ধরে রাখতে সামনের সবগুলো খেলাই জিততে হবে টাইগারদের | আজকের খেলা জয়ের মধ্য দিয়ে এটাও যে সম্ভব জানান দিলেন ম্যাশ বাহিনী |