ইরাককে আরো ৯০ দিনের ছাড়

বাংলা পেপার ডেস্কঃ

ইরানের কাছ থেকে গ্যাস ও বিদ্যুৎ কেনা চালিয়ে যেতে পারবে ইরাক’

ইরানের কাছ থেকে গ্যাস ও বিদ্যুৎ আমদানি চালিয়ে যাওয়ার জন্য ইরাককে আরো ৯০ দিনের ছাড় দিয়েছে ওয়াশিংটন। ইরানের জ্বালানী খাতের ওপর আমেরিকার কঠোর নিষেধাজ্ঞা থাকায় বিশ্বের যেকোন দেশ ইরানের কাছ থেকে জ্বালানী আমদানি করলে ওই দেশকেও মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হয়। কিন্তু ইরাককে ছাড় দেয়ার কারণে আগামী তিনমাস বাগদাদ তেহরানের কাছ থেকে নির্বিঘ্নে গ্যাস ও বিদ্যুৎ কেনা অব্যাহত রাখতে পারবে।

ইরাকের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সরকারি সূত্র জানিয়েছে, গত মার্চে বাগদাদকে দেয়া তিন মাসের ছাড়ের সময় শেষ হয়ে আসায় ইরাকের পক্ষ থেকে ওয়াশিংটনের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি আলোচনা চালানো হয়। এই আলোচনার জের ধরে ৯০ দিনের ছাড় আদায় করা সম্ভব হয়েছে বলে তিনি জানান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অপর ইরাকি কর্মকর্তা বলেছেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও’র সঙ্গে ইরাকি প্রধানমন্ত্রী আদিল আব্দুল মাহদি টেলিফোনে কথা বলার পর এ ছাড় আদায় করা সম্ভব হয়েছে।

ইরাক ৯০ দিনের ছাড় পেয়েছে বলে বার্তা সংস্থা এপি ও এএফপি খবর দিলেও রয়টার্স বলেছে, ওয়াশিংটন আসলে বাগদাদকে ১২০ দিনের ছাড় দিয়েছে। ইমেইলে পাঠানো মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতির বরাত দিয়ে রয়টার্স একথা জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ইরাক যাতে ইরান থেকে বিদ্যুৎ আমদানি চালিয়ে যেতে পারে সেজন্য আরো ১২০ দিনের ছাড় দেয়া হয়েছে।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে তার দেশকে বের করে নেন এবং একই বছরের নভেম্বরে ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন। তবে একই সময়ে ওয়াশিংটন ইরানের কাছ থেকে তেল কেনার ক্ষেত্রে কিছু দেশকে ছয় মাসের জন্য ছাড় দিয়েছিল যা গতমাসে শেষ হওয়ার পর আর নবায়ন করা হয়নি। কিন্তু ইরানের কাছ থেকে গ্যাস ও বিদ্যুৎ আমদানির ক্ষেত্রে ইরাককে দেয়া ছাড় দ্বিতীয়বারের মতো নবায়ন করল ওয়াশিংটন।