আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতাকে ক্রমাগত হত্যার হুমকি; সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

আসাদুজ্জামান খাইরুল- বিশেষ প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক মো. সারোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা অভিযোগ এনে অনলাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার ও মুঠোফোনে ক্রমাগত প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ায়, উক্ত শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে  সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) আশুলিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগের সাভার-আশুুুলিয়া আঞ্চলিক শাখা অফিসে লিখিত বক্তব্যে এই অভিযোগগুলো পাঠ করেে শোনাায় শ্রমিক নেতা সরওয়ার ।

লিখিত বক্তব্যে এই শ্রমিক নেতা জানান, কয়েকদিন যাবত একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার সুনাম নষ্ট করার জন্য এবং আমাকে সাংগঠনিক কাজ থেকে দূরে রাখার জন্য বিভিন্নভাবে বিভিন্ন কৌশলে হুমকি প্রদান করে যাচ্ছে, এ ছাড়াও মুঠোফোনে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি সহ, আমার বিরুদ্ধে গার্মেন্টস থেকে ও ইউনিয়নের নাম করে চাঁদা আদায় করার কথা বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

যাহার আদৌ কোনো সত্যতা ও কোন ভিত্তি নেই। বরংঞ্চ আমি আপনাদের সামনে দায়িত্ব নিয়ে বলতে চাই, কোথাও আমার কোনো সম্পত্তি নাই এবং আমার জমা ও গচ্ছিত টাকা পয়সাও নাই। ডাচ বাংলা ব্যাংক এ আমার একাউন্টে ৯২০ টাকা জমা আছে, এর বাহিরে কোন সম্পত্তি বা টাকা পয়সার কোন প্রমাণ দিতে পারলে ও উপরোক্ত অপপ্রচার গুলোর কোন ন্যূনতম সত্যতার প্রমাণ দিতে পারলে আমি আর সংগঠন করবো না এবং প্রচলিত আইনে যে কোন শাস্তি মাথা পেতে নিতে আমি প্রস্তুত।

তিনি আরো বলেন এ ব্যাপারে গত ৭/১০/২০১৯ইং তারিখে একটি ফেসবুক আইডি ও হুমকি দেওয়ার মোবাইল নাম্বার গুলো উল্লেখ করে আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি নং ৬৩৮ করি। উপরন্ত সাধারণ ডায়েরি করার পর উক্ত নাম্বারগুলো থেকে আরো বেশি করে ক্রমাগত হুমকি আসতে থাকে।

হুমকিদাতাদের সাথে আমার আগে কখনো কথা বা পরিচয় হয়নি। পরে খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারি হুমকিদাতাদের একজনের নাম হচ্ছে ভাস্কর দেব ও এমডি কাদের, যাদের  সাথে অন্য একটি শ্রমিক সংগঠনের নেতা রাজিবুল হাসান সোহাগের সাথে গভীর সম্পর্ক আছে বলে জানতে পারি এবং তিনি উপরোক্ত অপপ্রচার গুলোর সাথে একমত পোষণ করেছেন বলে জানা যায়।

সবশেষে শ্রমিক নেতা সারোয়ার আরো জানান এই সিন্ডিকেটের কারণে বর্তমানে আমাকে আতঙ্কিত ভাবে দিন কাটাতে হচ্ছে, তাই প্রশাসনের পরামর্শক্রমে আমার বাঁচার তাগিদে অপপ্রচার বন্ধে হুমকিদাতাদের ও তাদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

আপনাদের মাধ্যমে সরকার ও সকল সচেতন সমাজের নিকট আকুল আবেদন আমি স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতে চাই এবং শ্রমিক শিল্প ও দেশের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার ও আপনাদের সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগ আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক লায়ন মোঃ ইমাম হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, মেহেদি হাসান, ইমন শিকদার, আরিফ হোসেন, শাহ আলম, আব্দুল হালিম, রাসেল মন্ডল, রাজু আহমেদ, মাহাবুব আলম বাচ্চু, বাদল শিকদার ও জহির আহমেদ সহ আরও অনেক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।