অপহরণের ১১ দিন পর ব্যবসায়ী ইদ্রিস খানকে জীবিত উদ্ধার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ

খোরশেদ আলম, সাভার প্রতিনিধিঃ

আশুলিয়ায় অপহরণের ১১ দিন পর ব্যবসায়ী ইদ্রিস (৩৮) খানকে টাঙ্গাইলের শফিপুর থানা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় এই চক্রের নারীসহ তিন সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তবে অপহরণ চক্রের নায়ক রাজুকে এখনো আটক করতে পারেনি পুলিশ।



শনিবার দুপুরে আশুলিয়া থানায় সংবাদ সম্মলনের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। এর আগে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে টাঙ্গাইলের সখিপুর পাহাড়তলীর এক বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক অপহরণকারীরা হলেন- টাঙ্গাইলের শফিপুর দায়রাপুর গ্রামের মৃত সূর্যত আলীর ছেলে মো. রাজ্জাক(৪৫), কুষ্টিয়ার খোকসা থানার ওসমানপুর গ্রামের মালাল শেখর ছেলে এনামুল(৩০) ও অপরজন গাজীপুরের কাশিমপুর থানার হাতিমারা গ্রামের আব্দুল হকের মেয়ে মাজেদা বেগম(৩৫)।

অপহৃত ব্যবসায়ী জানান, সিলেটে বেড়াতে যাবার কথা বলে গত ২৫ মার্চ ভুক্তভোগীর বন্ধুসহ ৯ জনের অপহরন চক্র তাকে কৌশলে অপহরণ করে। পরে তার পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবী করে কিন্ত ইদ্রিস খানের ছেলে আশুলিয়া থানায় একটি অভিযোগ করেন । অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ ।



আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ মনিরুজ্জান পিপি এম জানান, ইদ্রিস খানের ছেলের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে আমরা অপহরণের সত্যতা পাওয়া গেলে তাকে উদ্ধারের অভিযান শুরু করা হয়। তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে অপহৃতের অবস্থান নিশ্চিত করে সখিপুর পাহাড়তলীর এলাকা এক বাড়ি থেকে নারীসহ তিন জনকে আটক ও ভুক্তভোগীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনার মুল হোতাকে আটক করা সম্ভব হয়নি তবে আটকের জন্য অভিযান অব্যহত আছে। অপহরণকারীরা খুব এক্সপার্ট ও কৌশলী হওয়ায় তাদের গ্রেফতারে একটু সময় লেগেছে বলেও জানান তিনি।